দৈনিক সান্তাহার

আবার কবে আসবেন প্রধানমন্ত্রী আমাদের সান্তাহারে?

SheikhHasina

নাজমুল হক ইমন :: এক বছর পার হয়েছে। ক্যালেন্ডারের পাতাও থেমে নেই, নেই ঘড়ির কাঁটা। দেখতে দেখতেই সময় পার। গত বছর ২৬ ফেব্রুয়ারি সান্তাহারে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সবার হয়তো মনে আছে। সান্তাহারের জন্য দিনটি ছিল বিশেষ। কারণ প্রায় ১ মাসের প্রস্তুতি ছিল প্রিয় শহরে প্রধানমন্ত্রীর আগমন কেন্দ্র করে। ২৬ ফেব্রুয়ারি যখন হেলিকপ্টার থেকে নেমেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তখন ঘড়িতে কাঁটাগুলো ছিল ১২টার ছকে। সান্দিরার মাঠে তিনি পা ফেলেন।
সান্তাহারসহ আশপাশ এলাকার মানুষের কি যে উৎকন্ঠা ছিল তার আগমন ঘিরে। মনে আছে হয়তো সবার। সেদিন আমাদের সান্তাহার শহরের অন্তত ২ কিলোমিটার দূরত্ব থেকে পায়ে হেঁটে জোড়ো হোন জনসভায় হাজার হাজার মানুষ। জয়পুরহাট, নাটোর ও রাজশাহী এলাকা থেকে মানুষ ট্রেনে এসে সকাল সকালই পৌছে অনেকে সান্তাহারে।
সবারই হয়তো আরো মনে আছে। প্রধানমন্ত্রী সান্তাহার সাইলো চত্বরে অনেকটা সময় ব্যয় করেন। জাপান সরকারের তিন’শ কোটি অর্থায়নে নির্মিত ২৫ হাজার মেট্রিক টন ধারন ক্ষমতার শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অত্যধুনিক খাদ্যগুদামের উদ্বোধন করেন। এরপর নামাজ পরে দুপুরের খাবারের পর্বটাও শেষ করে।
সেদিন সান্তাহারে আরেকটি ইতিহাস তৈরি হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রথমবারের মতো সান্তাহারে দাঁড়িয়ে বক্তব্য প্রদান করেন। দেন অনেকে প্রতিশ্রুতি। জনসভার মাঠে জায়গা না পেয়ে হাজারো জনতা মাঠের পাশের সড়ক ও বিভিন্ন বাসাবাড়ি ও ভবনের ছাদে, ফাঁকা স্থানে দাড়িয়ে তার বক্তব্য শোনেন।
এক বছর পর আবারো নতুন করে মনে সাড়া জাগছে; আমাদের প্রধানমন্ত্রী আবার কবে আসবেন, আমাদের প্রাণের সান্তাহারে। আমাদের প্রিয় শহর সান্তাহারের রাস্তাতে পরবে তার পায়ের চিহ্ন। তাকে এক নজর দেখার জন্য আবারো প্রত্যাশিত মনে সময়ের অপেক্ষা করবেন অনেকে। দিক প্রতিশ্রুতি, বাস্তবায়ন হোক বা না হোক; প্রিয় প্রধানমন্ত্রীর মুখে তো সান্তাহার নামের শহরটি উচ্চরণ হবে বারবার। সেটাই বা কম কিসের। আমরা অপেক্ষায় আছি, প্রিয় প্রধানমন্ত্রী আবার আসবেন আমাদের প্রাণের শহর প্রিয় শহর সান্তাহারে সে প্রত্যাশায়।

>> সান্তাহার ডটকম/ইএন/ ৩ মার্চ ২০১৮ইং

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *