প্রয়োজনীয় তথ্য

করতোয়া কুরিয়ার এন্ড পার্সেল সার্ভিস

Karatoa Courier Serviceসান্তাহার ডেস্ক:: করতোয়া কুরিয়ার এন্ড পার্সেল সার্ভিস শুধুমাত্র দেশের বাংলাদের বিভিন্ন জেলায় পার্সেল সার্ভিস দিয়ে থাকে। দেশের বাইরে এই প্রতিষ্ঠানের কোন সার্ভিস নেই। ঢাকাসহ সারা বাংলাদেশে মোট ৩৫ টি শাখা রয়েছে।

ঢাকা সিটি অফিস
পার্সেল ও ডকুমেন্ট বুকিং অফিস- ক্রিসেন্ট টাওয়ার, ৩৬ তোপখানা রোড, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০
ফোন নম্বর- ০২-৭১৭০১১৮-৯
মোবাইল নম্বর- ০১৭১৩২২৮৪০৬

প্রধান কার্যালয়ের ঠিকানা
শহীদ আব্দুল জব্বার সড়ক, ধলেশ্বরীতলা, বগুড়া।
ফোন নম্বর: ০৫১- ৫১২৮৮, ৬১৪১৬
ই-মেইল- kesdhaka@yahoo.com
ওয়েবসাইট- www.kcs_bd.com

শাখা সমূহ
ঢাকা মহানগরীতে অবস্থিত শাখা সমূহ
শ্যামলী, মোবাইল- ০১৭১৩-২২৮৪২৭
গুলশান, মোবাইল- ০১৮১৭-৫৪৩০৪৭
বাড্ডা, মোবাইল- ০১৭১১-৩০৩০১৩
নবাবপুর, মোবাইল- ০১৭১২-৬১৮২২১
পাটুয়াটুলী, মোবাইল- ০১৫৫২-৫৪১৪০৫
বাংলা বাজার, মোবাইল- ০১৭১১-৮৪২৫৮৪
নিউ মার্কেট, মোবাইল- ৯৬৭৩৩৬৮, ০১৫৫২-৩৫৬৪৬১
মোহাম্মদপুর, মোবাইল- ০১৭১৩-২২৮৪৩২
মিরপুর, মোবাইল- ০১৭১৩-২২৮৪৫৫
উত্তরা, মোবাইল- ০১৭১৩-২২৮৪৯৭

যেসব জেলায় পার্সেল পাঠানো যায়।
বগুড়া, নওগাঁ, সিরাজগঞ্জ, পাবনা, নাটোর, রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, গাইবান্ধা, রংপুর, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, জয়পুরহাট, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড়, কুষ্টিয়া, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, ময়মনসিংহ, টাঙ্গাইল, চট্রগ্রাম,  ঝিনাইদহ এবং যশোর জেলাতে পার্সেল পাঠানো যায়।

সেবা সমূহ
এই কুরিয়ার সার্ভিস প্রতিষ্ঠান ডকুমেন্ট, চিঠিপত্র, আসবাবপত্র, মোটর সাইকেল, মালামালের ছোট বড় কার্টুন, টেলিভিশন, ফ্রিজ, কার্টুন, ব্যাগ, গিফট সামগ্রী, ঔষধ, বই পুস্তক, ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য এবং ভারীপণ্য নিজ দায়িত্বে প্রাপকের ঠিকানায় পৌছানোর কাজ করে থাকে।
পণ্য বা মূল্যবান দ্রব্যাদি অত্যন্ত নিরাপত্তার সাথে ডেলিভারি করে থাকে।
পণ্য সময়মত না পৌছালে প্রতিষ্ঠানের গাবতলী অফিসে যোগাযোগ করতে হয়।
পন্য পরিবহনের সময় ক্ষতিগ্রস্থ হলে বা হারিয়ে গেলে প্রেরককে আর্থিক ক্ষতি পূরণ প্রদান করে থাকে এই প্রতিষ্ঠান। অভিযোগ করার সর্বোচ্চ ৬০ দিনের মধ্যে পণ্যের বাজার মূল্য অনুযায়ী প্রদান করে থাকে প্রতিষ্ঠানটি।
ঠিকানা অনুযায়ী প্রাপকের নিকট পার্সেল পৌছানোর ব্যবস্থা রয়েছে।
২৪ ঘন্টার মধ্যে পার্সেল প্রাপকের নিকট পৌছে দেওয়া হয়। তবে প্রাকৃতিক দূর্যোগ বা অন্যকোন কারণে সময়ের কিছুটা হেরফের হয়।
এই প্রতিষ্ঠান নগদ মুদ্রা, মূল্যবান গহনা পরিবহন করে না।
পার্সেল পরীক্ষা করে প্যাকিং করা হয়ে থাকে।
এই প্রতিষ্ঠান কোন প্রকার অবৈধ পণ্য পরিবহন করে না।

প্যাকিং ও খরচ
এই প্রতিষ্ঠানে পাঠানো পণ্যের প্যাকিংয়ের ব্যবস্থা রয়েছে।
চট, কার্টুন বা কাপড় দিয়ে পণ্যগুলো প্যাকিং করার ব্যবস্থা রয়েছে।
ছোট সাইজের পার্সেল / কার্টুন প্যাকিং করতে ৭৫ টাকা, মাঝারী সাইজের পার্সেল / কার্টুন ১৫০ এবং বড় সাইজের পার্সেল / কার্টুন ২৫০ টাকা খরচ পরে।

বিল পরিশোধ
এই প্রতিষ্ঠানে শুধুমাত্র ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধের ব্যবস্থা রয়েছে।

বিবিধ
লোডশেডিং এর সময় নিজস্ব জেনারেটরের মাধ্যমে বিদ্যুৎ ব্যবস্থা সচল রাখা হয়।
ওয়েটিং রুমের পূর্ব দিকে পুরুষদের জন্য ২টি এবং মহিলাদের জন্য ১টি ওয়াশরুমের ব্যবস্থা রয়েছে।
ফায়ার এক্সিট এবং পর্যাপ্ত অগ্নি নির্বাপন যন্ত্রের ব্যবস্থা রয়েছে।
এই প্রতিষ্ঠানের অফিসের সামনে রাস্তার পাশে গাড়ী পার্কিং করতে হয়।

>> সান্তাহার ডটকম/ইএন/২৭ মার্চ ২০১৭ইং

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *