দৈনিক সান্তাহার

ঘনঘন মণ্ডপে হামলা আবারো মূর্তি ভাঙচুর

ঘনঘন মণ্ডপে হামলা, আবারো মূর্তি ভাঙচুর

সান্তাহার ডেস্ক :: আদমদীঘিতে কালী মণ্ডপে হামলা চালিয়ে মূর্তি ভাঙচুরের রেশ কাটতে না কাটতেই একদিনের ব্যবধানে আবারো একই ইউনিয়নের আড়াইল গ্রামের সন্ন্যাসতলীর সন্ন্যাস মূর্তি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। পর পর দুটি মূর্তি ভাঙার ঘটনায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আদমদীঘির আড়াইল গ্রাম সংলগ্ন মাঠের মধ্যে সন্ন্যাসতলী নামক স্থানে একটি বটগাছের নিচে দীর্ঘদিন ধরে সন্ন্যাস মূর্তি রেখে সনাতন ধর্মের লোকজন পূজা করে আসছিলেন। সোমবার সকালে ওই স্থানে গিয়ে গ্রামবাসী দেখেন কে বা কারা মূর্তিটির একটি হাত ও পা ভেঙে ফেলেছে। ঘটনাটি আদমদীঘি থানা পুলিশকে জানালে পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

ওই গ্রামের অভিলাশ কুমার বর্মন জানান, রবিবার গভীর রাতে সবার অলক্ষে মূর্তিটি ভাঙা হয়েছে। এ ব্যাপারে আদমদীঘি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, ঘটনা জানার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এখন তদন্ত চলছে। মূর্তি ভাঙচুরের সাথে যারা জড়িত থাকুক না কেন তাদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার আদমদীঘির চাঁপাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর ভরণতলা মন্দিরে হামলা চালিয়ে পুরোহিতকে মারপিট করে হাসুয়ার কোপে কালিমূর্তির দুই হাত কেটে ফেলে পূজা ভণ্ডুলের চেষ্টা করে একদল দুর্বৃত্ত।

সান্তাহার ডটকম/ইএন/১১ জুন ২০১৯ইং