বিবিধ

জীবন সংগ্রামে হার না মানা নূর মোহাম্মদ

সান্তাহার ডেস্ক :: আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে জীবন সংগ্রামে হার মানেননি পা হারানো প্রতিবন্ধী যুবক নূর মোহাম্মাদ (২৫)। এক সময়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিল্ডিংয়ে রঙের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। একদিন হঠাৎ করে ঢাকায় বিল্ডিংয়ে রঙের কাজ করার সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তিনতলা থেকে পড়ে যান। পরে একটি পা কেটে ফেলা হয়। এখন একটি পায়ের ওপর ভর করেই ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান চালিয়ে সংসার চালাচ্ছেন নূর মোহাম্মাদ।

সোমবার প্রতিবন্ধী নূর মোহাম্মাদ তার অটোভ্যানে ঢেকড়া থেকে যাত্রী নিয়ে আদমদীঘি উপজেলা সদরে আসেন। সেখানে তার সঙ্গে কথা হয়।

সান্তাহার ইউনিয়নের ঢেকড়া গ্রামের মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে নূর মোহাম্মাদ। বাবার অভাব অনটনের সংসারে কোনো রকমে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত গ্রামের স্কুলে লেখাপড়া করেছেন।

প্রতিবন্ধী নূর মোহাম্মাদ জানান, লেখাপড়া করতে না পেরে ২০০৫ সালে ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করার পর ২০০৭ সাল থেকে সে রঙ মিস্ত্রি হিসেবে বড়বড় বিল্ডিংয়ে কাজ শুরু করেন। এরপর ২০১১ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ঢাকার একটি তিনতলা ভবনের বিল্ডিংয়ে রঙের কাজ করার বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। এতে পা, পিট ও হাতসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে ঝলসে যায়। পরে ডান পায়ের হাঁটু পর্যন্ত কেটে ফেলা হয়।

নূর মোহাম্মাদ পঙ্গুত্ববরণ করলেও জীবন সংগ্রামে হার মানেননি। তিনি বাড়িতে এসে প্রথমে স্থানীয় বিদ্যালয়ের সামনে ঝালমুড়ি পাপড় বিক্রি করে সংসার চালাতে শুরু করেন। বর্তমানে ৬০ হাজার টাকা ব্যয়ে একটি নতুন ব্যাটারিচালিত অটোভ্যান রিকশা কিনে নিজেই এক পায়ে ভর করে যাত্রী বহন করে জীবিকা নির্বাহ করছেন। এখন তার সংসারে বৃদ্ধ মা, এক ভাই এক বোন, স্ত্রী এবং মাত্র ৩ মাস বয়সের একটি সন্তান রয়েছে। তাকে প্রতিবন্ধী ভাতা করে দেন জনপ্রতিনিধিরা। এখন আর তার সংসারে অভাব অনটন নেই। প্রতিদিন অটোভ্যান চালিয়ে যে টাকা আয় হয় তা দিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে চলছে তার সংসার।

সূত্র : মুনজুরুল ইসলাম মুনজু, ভোরের কাগজ, আদমদীঘি

সান্তাহার ডটকম/২৫ আগস্ট ২০২০ইং/এমএম

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *