দৈনিক সান্তাহার

বিহিগ্রাম বনতইর বলদাকুড়ি সড়কের বেহাল দশা

আদমদীঘির বিহিগ্রাম বনতইর বলদাকুড়ি সড়কের বেহাল দশা

সান্তাহার ডেস্ক :: আদমদীঘির বিহিগ্রাম-বনতইর হয়ে বলদাকুড়ি পর্যন্ত প্রায় ৮কিলোমিটার গ্রামীন সড়ক পাকা করণের দীর্ঘ এক যুগ পেরিয়ে গেলেও সংস্কার কিংবা মেরামত না করার প্রায় পুরো সড়কের কার্পেটিং উঠে বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে। সড়কের পুরো এলাকার খানাখন্দকে ভরপুর হয়ে ছোট যানবাহন, স্কুল কলেজের ছাত্রছাত্রীসহ জনসাধারনের চলাচলে অযোগ্য হয়ে পড়েছে। এলাকাবাসি জরুরী ভিক্তিতে এই সড়কটি মেরামত কিংবা পুনঃ নির্মান করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন।

জানা যায়, আদমদীঘির চাঁপাপুুর ইউনিয়নের বিহিগ্রাম বাজার হতে বনতইর হয়ে আবাদপুকুর সড়কের বলদাকুড়ি পর্যন্ত প্রায় ৮ কিলোমিটার গ্রামীন কাঁচা সড়কটি ২০০৬ সালের জানুয়ারী মাসে স্থানীয় সরকারের অর্থায়নে পাকা কার্পেটিং করণ করা হয়। এই সড়ক দিয়ে বড়িয়াবার্তা, গোবিন্দপুর, বনতইর, কয়াকুঞ্চি, হাউসপুর, মাতাপুর, সিংগাহার ছাতারবাড়ীয়, রানীনগরের আবাদপুকুর বাজার, ভেটি, বিষপুর, হলদেপুরসহ প্রায় ২০টি গ্রামের হাজার হাজার মানুষ উপজেলা সদর রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে রিক্সা-ভ্যান কিংবা মোটরসাইকেলসহ ছোট যানবাহন যোগে যাতায়াত করে থাকেন।

সড়কটি নির্মানের প্রায় এক যুগ পেরিয়ে গেলেও কোন প্রকার সংস্কার কিংবা মেরামত কাজ করা হয়নি। ফলে পুরো সড়কে পাকা কার্পেটিং উঠে গর্তসহ খানাখন্দকে পরিনত হয়েছে। এলাকাবাসির হাট বাজারে ধান চাল তরিতরকারি বহনে যেমন অসুবিধার মধ্যে পড়তে হচ্ছে। তেমনি জরুরি রোগি বহনেও ভোগান্তিতে পড়েছে।

বর্তমানে সড়কটি ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে পড়ায় ছোট যানবাহন ও সাধারন মানুষের চলাচল মারাত্মক ঝুঁকি হয়ে বেহাল দশায় পরিনত হয়েছে। চাঁপাপুর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যড, সামছুল হক সাম জানান, জনগুরুত্বপূর্ন এই সড়কটি পুনঃনির্মানের জন্য কয়েক দফায় আবেদন করার পর এক যুগ পেরিয়ে গেলেও বরাদ্দের জন্য অনুমতি পাওয়া গেছে। উপজেলা প্রকৌশলী বিভাগ জানায়, সড়কটি পুনঃনির্মানের জন্য ইতিমধ্যেই বরাদ্দ চেয়ে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের নিকট বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করা হয়েছে। বরাদ্ধ পেলেই টেন্ডার আহবান করা হবে।

সান্তাহার ডটকম/ইএন/১০ জুন ২০১৯ইং

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *