দৈনিক সান্তাহার

শ্রমিক খরচই উঠছে না চাষিদের!

Santahar Morichএবার কাঁচা মরিচের বাম্পার ফলন হলেও চাষিদের মুখে হাসি নেই। বর্তমানে পাইকারি বাজারে দাম মাত্র চার-পাঁচ টাকা কেজি। ফলে উৎপাদিত মরিচ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন কৃষকেরা।
এলাকার কৃষক ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, সান্তাহার পৌর এলাকা ও সান্তাহার ইউনিয়নসহ ছাতিয়ানগ্রাম, নশরতপুর, কুন্দগ্রাম ও চাঁপাপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের উঁচু জমিতে মরিচের ব্যাপক আবাদ হয়। এ বছর আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ফলন হচ্ছে উল্লেখ করার মতো। কিন্তু বাজারে এখন মরিচ পানির দরে বিক্রি হচ্ছে। বর্তমানে সান্তাহার ও আদমদীঘির বিভিন্ন বাজারে মণপ্রতি মরিচের দাম মাত্র ২০০ টাকার বেশি নয়। অথচ একজন শ্রমিকের এক বেলার মজুরি ২০০ টাকা। সেই শ্রমিক এক বেলায় খেত থেকে ২০ থেকে ২৫ কেজি মরিচ তুলতে পারে, যার বাজারমূল্য প্রায় ১২৫ টাকা। সে হিসাবে মরিচ বিক্রি করে কৃষকের শ্রমিক খরচই উঠছে না। বাধ্য হয়ে কৃষকেরা পরিবারের সদস্যদের দিয়ে মরিচ তুলে বিক্রি করছেন। যাঁদের সে সুযোগ নেই, তাঁদের মরিচ জমিতেই পচে নষ্ট হচ্ছে।
কৃষক আবদুল মতিন ও আয়নুল হক বলেন, শনিবার ও মঙ্গলবার সাপ্তাহিক হাট বসে। গতকাল শনিবার তাঁরা পাইকারদের কাছে ১৮০ থেকে ২০০ টাকা মণ দরে কাঁচা মরিচ বিক্রি করতে পেরেছেন।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শাহাদুজ্জামান বলেন, মাঠপর্যায়ে কর্মকর্তাদের তদারকের কারণে কাঁচা মরিচের আশাতীত ফলন হয়েছে এবার। তবে দাম না পাওয়ায় কৃষকেরা কিছুটা হতাশ।
সান্তাহার ডটকম/ইএন-১৭ জুলাই ২০১৬ইং

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *