দৈনিক সান্তাহার

১৯ প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নেই প্রধান শিক্ষক

teacher Santaharসান্তাহার ডেস্ক:: আদমদীঘি উপজেলার ১৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন যাবত নেই প্রধান শিক্ষক। ওইসব বিদ্যালয়ে দায়সারা ভাবে চালানো হচ্ছে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক দিয়ে। ফলে প্রশাসনিক কার্যক্রমসহ শিক্ষাক্রম চলছে মারাত্বক ঢিমে তালে। অভিভাবক মহল জরুরি ভিক্তিতে এইসব বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগের দাবী দাবী জানিয়েছেন। বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলায় ৯৮টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এরমধ্যে ১৯টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েই দীর্ঘদিন যাবত নেই প্রধান শিক্ষক। এরমধ্যে কয়াকুঞ্চি, বড়িয়াবার্তা, বনতইর, ঝাকইর, তিলছ শিববাটী, হরিনমারা, কাথলা, ছাতুয়া সিংড়া, প্রান্নাথপুর, সান্দিড়া, ছোটআখিড়া, কুসুম্বী, সাওইল, কড়ই, ভেনলা, বাগবাড়ী, বড়আখিড়া, সুদিন ও জিনইর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নেই। এসব বিদ্যালয় গুলোতে দীর্ঘদিন যাবত প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য থাকলেও কর্তৃপক্ষ প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ প্রদান না করে একজন সহকারী শিক্ষককে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হিসাবে দায়িত্ব দিয়ে ঢিমে তালে চালানো হচ্ছে দাপ্তরিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম। প্রধান শিক্ষক না থাকায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকরা বিভিন্ন অজুহাতে প্রায় দিনই উপজেলা সদরে ব্যস্ত থাকায় শিক্ষাক্রম চলছে মারাত্বক ঢিমে তালে। সেই সাথে কোমলমতি ছাত্র ছাত্রীদের পড়াশুনা বিঘিœত হচ্ছে বলে অভিবাবকদের অভিযোগ। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (চলতি দায়িত্বে) রেজাউল ইসলাম জানান, যে সকল বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে সে সব বিদ্যালয়ের নামের তালিকা উর্দ্ধতন কতৃপক্ষ বরাবর প্রেরন করা হয়েছে।

>> সান্তাহার ডটকম/ইএন/১৫ মে ২০১৭ইং

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *