সান্তাহারের বাহিরে

কবরস্থানের জঙ্গলে মিলল ইউপি সদস্যের ছেলের লাশ

সান্তাহার ডেস্ক ::  বগুড়ার আদমদীঘিতে একটি কবরস্থানের জঙ্গল থেকে ইউপি সদস্যের ছেলে সুজন হোসেন (২৫) নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার বেলা ১২টায় নিহতের বাড়ীর পাশে মুনিখাপুকুর পাড়ের কবরস্থানের জঙ্গল থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। সুজন উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ড সান্দিড়া গ্রামের ইউপি সদস্য ফেরদৌস হোসেনের ছেলে।

পুলিশ ও এলাকাবাসীর ভাষ্য, রবিবার রাতে উপজেলার সান্দিড়া পশ্চিম পাড়ার মুনিখা পুকুরের কবরস্থানের জঙ্গলে পড়নের শার্ট দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে সুজন। রাত ১১টায় কবরস্থানের জঙ্গলে গিয়ে চাচাতো ভাই হাসান সুজনের লাশ দেখতে পায়। ঘটনাটি পুলিশকে জানালে সোমবার বেলা ১২টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন।

নিহতের চাচাতো ভাই হাসান এই মৃত্যুটিকে আত্মহত্যা বলে দাবী করে বলেন, পারিবারিক কলহের কারনে রবিবার সন্ধ্যায় সুজন কুলিপাড়া বাজার এলাকায় অভিমান করে বলেন আমাকে যদি তোমরা কোথাও খুঁজে না পাও তাহলে মুনিখাপুকুর পাড়ের কবরস্থানের জঙ্গলে দেখতে পাবে। এরপর রাত গভির হলে সুজন বাড়ীতে না ফেরায় আমাদের সন্দেহ হয়। পরে মুনিখাপুকুর পাড়ের জঙ্গলে গিয়ে তার লাশ দেখতে পাই।

আদমদীঘি-দুপচাঁচিয়া থানার সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সার্কেল এসপি) এরশাদ খান বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে ওই যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট এলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

সান্তাহার ডটকম/ ২০ অক্টোবর ২০২০ইং / এমএম   

 

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *