দৈনিক সান্তাহার

ডায়রিয়ায় এক মাসে ২ শতাধিক আক্রান্ত

Santahar 8 Aprilসান্তাহার ডেস্ক:: সান্তাহারসহ আদমদীঘি উপজেলায় ডায়রিয়ার প্রদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। গত মার্চ মাসে উপজেলায় শিশু নারীসহ দুই শতাধিক ব্যাক্তি আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে শিশুসহ ১৫৮ জনকে আদমদীঘি হাসপাতাল ভর্তি করা হয়। এদিকে হাসপাতালে ডায়েরিয়ার স্যালাইন ও প্রয়োজনীয় ওষুধের তীব্র সঙ্কটের কারণে চিকিৎসা সেবা মারাত্মক বিঘি্নত হচ্ছে। হাসপাতালে ঔষধ না পাওয়ায় রোগীরা সু-চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হয়ে অন্যত্র চলে যাচ্ছেন। আদমদীঘি উপজেলা সদর হাসপাতালে অনুসন্ধান করে জানা গেছে, অত্র উপজেলায় গত ১ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত এক মাসে বিভিন্ন গ্রামে শিশু নারী পুরুষসহ প্রায় দুই শতাধিক ব্যাক্তি ডায়রিয়া ও নিমোনিয়া রোগে আক্রান্ত হয়। এরমধ্যে অধিক আক্রান্ত নারী শিশুসহ ১৫৮ জন রোগীকে আদমদীঘি উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া প্রতিদিন হাসপাতালের বহির্বিভাগ উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও বিভিন্ন ক্লিনিকে অনেক ডায়রিয়া ও নিমোনিয়ায় আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন।
এদিকে হাসপাতালে দীর্ঘদিন ধরেই ডায়েরিয়া রোগীর স্যালাইন ও প্রায়োজনীয় ওষুধ মারাত্বক সঙ্কট দেখা দিয়েছে। ফলে স্যালাইনসহ প্রয়োজনীয় ওষুধের অভাবে অনেক রোগি হাসপাতালে ভর্তি থাকলেও বাধ্য হয়ে বাহির থেকে স্যালাইন কিনে চিকিৎসা নিতে হচ্ছে। ডায়েরিয়ার আক্রান্ত ভর্তি শিশু রোগীর অভিভাবক শালগ্রামের মিলন ইসলাম, শিবপুর গ্রামের মছির উদ্দীনসহ অনেকে জানান, হাসপাতাল থেকে ডায়েরিয়া রোগীদের স্যালাইন সরবরাহ না করার কারণে বাহির থেকে চড়াদামে ওষুধ কিনে চিকিৎসা করাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। আদমদীঘি হাসপাতালের কর্তব্যরত মেডিকেল অফিসার ডা. ওবাইদুল ইসলাম জানান বৈরী আবহাওয়া ও ঠান্ডা জনিত কারনে অনেকেই ডায়রিয়ার আক্রান্ত হয়ে থাকেন। বর্তমানে হাসপাতালে কলেরার কোনো স্যালাইন ও ওষুধ সরবরাহ নেই। স্যালাইনসহ প্রয়োজনীয় ওষুধ জরুরিভাবে সরবরাহের জন্য ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষ বরাবর জানানো হয়েছে।

>> সান্তাহার ডটকম/ইএন/৮ এপ্রিল ২০১৭ইং

About the author

Santahar Team

Add Comment

Click here to post a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *